মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

প্রকল্প

 

১।   একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্প ঃ-  

সৈয়দপুর উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। প্রতি ইউনিয়নে ৯টি গ্রাম করে মোট ৪৫টি গ্রামের (প্রতি গ্রামে ৬০পরিবার করে) মোট ২৭০০টি পরিবার এই প্রকল্পের আওতাভুক্ত করা হয়েছে। ২০১০-২০১১ অর্থ-বছরে অত্র উপজেলায় সম্পদ হস্তান্তরের জন্য মোট ২৮,০০,০০০ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গিয়েছে। প্রকল্পের সম্পদ হস্তান্তরের আওতায় সুফলভোগীদের মধ্যে ১০০ জন বকনা গাভী,৪৪ জন ঢেউ টিন,৩০ জন হাঁস-মুরগীর বাচ্ছা,৯০ জন গাছের চারা এবং ১২০ জনের মধ্যে শাক সবজির বীজ বিতরণ সম্পন্ন করা হয়েছে এবং ২০১১ -১২ অর্থ-বছর পর্যন্ত ২১৬০ জন সদস্যের কাছ থেকে ৪০.৩২ লক্ষ টাকা সঞ্চয় আদায় করা হয়। এই সঞ্চয়ের বিপরীতে ৪০.৩২ হাজার টাকা উৎসাহ বোনাসের বরাদ্দ পাওয়া গিয়াছে এবং কল্যাণ অনুদান খাতে ৪৮.১৫ লক্ষ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গিয়াছে। সদস্যদের সঞ্চয়ের টাকা,উৎসাহ বোনাসের টাকা এবং কল্যাণ অনুদানের টাকা মিলে মোট (৪০.৩২+৪০.৩২+৪৮.১৫) = ১২৮.৭৯ টাকা হতে এ পর্যন্ত ১৬১৫ জন সদস্যদের মাঝে ১১৩.৭৪ লক্ষ টাকা ঋণ বিতরণ করা  হয়েছে।

 

২। মূল কর্মসূচী ঃ-

এই কর্মসূচীর আওতায় অত্র উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে ১০৫টি কৃষক সমবায় সমিতি আছে। যার সদস্য সংখ্যা-৩৭৪২জন।এই  কর্মসূচীর বিপরীতে কৃষি ঋণ খাতে ২৩.৫০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গিয়াছে। এ পর্যন্ত ঘূর্ণায়মান হিসাবে এই কর্মসূচীর আওতায় কৃষকদের কৃষি খাতে উন্নয়নের লক্ষে ১৩০.৬৮ লক্ষ টাকা ঋণ বিতরণ করা হয়েছে।

 

৩।  স্বমন্বীত দারিদ্র বিমোচন কর্মসূচী ঃ-

দারিদ্র বিমোচনের লক্ষে পল্লী এলাকার দরিদ্র জন গোষ্ঠীকে অনানুষ্ঠানিক দলভুক্ত করে প্রশিক্ষণ প্রদান,পুজি গঠন,সম্পদ উন্নয়ন,প্রযুক্তি হস্তান্তর,নারীর ক্ষমতায়ন,পরিবার পরিকল্পনা,স্বাস্থ্য উন্নয়নসহ কৃষি উন্নয়ন ও দারিদ্র বিমোচনের লক্ষে এই কর্মসূচীর আওতায় অত্র উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে মোট ৪০টি দল গঠন করা হয়। যার সদস্য সংখ্যা ১৫২৯ জন। এই কর্মসূচী হতে ক্ষুদ্র ঋণ খাতে ৪০.০০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গিয়াছে। এ পর্যন্ত এই কর্মসূচী হতে ঘূর্ণায়মান ঋণ হিসাবে ২৭৭.৫৩ লক্ষ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। 

 

পল্লী প্রগতি প্রকল্প ঃ-

 দরিদ্র জন গোষ্ঠীকে অনানুষ্ঠানিক দলভুক্ত করে প্রশিক্ষ্‌ণ প্রদানের মাধ্যমে আয় বর্ধনমুলক কর্মকান্ডে নিয়োজিত করে আর্থিক সচ্ছলতাসহ জীবন ও জীবিকার মান উন্নয়নের লক্ষে এই প্রকল্পের আওতায় অত্র উপজেলার শুধু মাত্র বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নে ২২টি (পুঃ০৬+মঃ১৬)টি  দল গঠন করা হয়। যার সদস্য সংখ্যা ৭০৪ জন। এই প্রকল্পের সদস্যদের আয় বর্ধনমূলক কর্মকান্ডের জন্য  ক্ষুদ্র ঋন প্রদানের লক্ষে ২৮.০০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ পাওয়া যায়।   

 

অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পোষ্যদের প্রশিক্ষণ আত্বকর্মসংস্থান প্রকল্পঃ-

অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পোষ্যদের প্রশিক্ষণ এবং আত্বকর্মসংস্থান সৃষ্টিরলক্ষে এই কর্মসূচীর জন্য এ পর্যন্ত অত্র উপজেলায় ১.৭২ লক্ষ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গিয়াছে। যা বর্তমানে ২৯ জন অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পোষ্যদের মাঝে ঋণ হিসাবে বিতরণ করা হয়। 

 

গুচ্ছগ্রাম প্রকল্প ঃ-

সরকারের দারিদ্র বিমোচনের অঙ্গিকার বাস্তবায়নের লক্ষে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড অন্যান্য দারিদ্র বিমোচন কর্মসূচীর সাথে গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পে পূণর্বাসিত জনগোষ্ঠীর জীবন মান উন্নয়নে শিক্ষা, ও আয় বর্ধন মুলক কাজ বাস্তবায়নে এ প্রকল্পের আওতায় প্রতিষ্ঠিত অত্র উপজেলায় শুধুমাত্র নিজবাড়ি গুচ্ছগ্রাম পূণর্বাসিতদের অনানুষ্ঠানিক দলে সদস্য ভুক্ত করে তাদের সক্রিয় অংশগ্রহনের মাধ্যমে পুঁজিগঠন ও আয়বর্ধন মুলক কর্মকান্ড ভিত্তিক প্রশিক্ষণ দান ও ক্ষুদ্র  ঋণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।এই প্রকল্প হতে পূণর্বাসিতদের জন্য ক্ষুদ্র ঋণ বাবদ ৮.০০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গিয়াছে। যাহা ঘূর্ণায়মান ঋণ তহবিল ৯.১৩ লক্ষ টাকা এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে।  

 

।  উত্তরাঞ্চলের হতদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান নিশ্চিতকরণ কর্মসূচী প্রকল্প ঃ

উত্তরাঞ্চলের অতিদরিদ্র জনগোষ্ঠীর সামাজিক বেকারত্ব দুরীকরণ,কর্মসংস্থান সৃষ্টি,আয় এবং ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে সামাজিক ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার উদ্দেশ্য   “উত্তরাঞ্চলের হতদরিদ্রদের কর্মসংস্থান নিশ্চিতকরণ কর্মসূচী ”শীষক প্রকল্পটি ২০১১-১২ অর্থ-বছর হতে অত্র উপজেলার তিনটি (০৩) ইউনিয়নে (কামারপুকুর ইউপি,কাশিরাম বেলপুকুর ইউপি,খাতামধুপুর ইউপি) তে বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রতিটি ইউনিয়ন হতে প্রকল্প মেয়াদে (২০১১-১৩) ৯৬ জন কের মোট (৯৬*৩)= ২৮৮ জনকে ৪টি ট্রেডে(টেইলারিং/সেলাই,বুটিক/বাটিক,এমব্রয়ডারী,মোবাইল সার্ভিসিং) ৬০ কর্মদিবস মেয়াদি দক্ষতা উন্নয়ন ও কর্মসংস্থান মুলক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। এ পর্যন্ত এই প্রকল্প হতে ১১২ জনকে ৪টি ট্রেডে সফলভাবে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।   

 

অপ্রধান শস্য উৎপাদন,সংরক্ষণ,প্রক্রিয়াকরণ ও বাজারজাতকরণ কর্মসূচী ঃ

জীবন ও জীবিকার জন্য প্রধান শস্য ধান। ধান উৎপাদনের পাশাপাশি অপ্রধান শস্য ডাল,তৈল বীজ,মসল্লা ও ভুট্টা জাতীয় শস্য উৎপাদনে সমভাবে গুরুত্ব আরোপ করেছেন সরকার  তাই এ জাতীয় শস্য উৎপাদন বৃদ্ধি ও দারিদ্র্য বিমোচন সহায়ক প্রকল্প হিসাবে “অপ্রধান শস্য উৎপাদন,সংরক্ষণ,প্রক্রিয়াকরণ ও বাজারজাতকরণ কর্মসূচী ”টি  ২০১২-১৩ অর্থ -বছর হতে অত্র উপজেলায় বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ প্রকল্পের আওতায় অপ্রধান শস্য উৎপাদনকারী কৃষকদের অনানুষ্ঠিানিক দল ভুক্ত করে “অপ্রধান শস্য উৎপাদন,সংরক্ষণ,প্রক্রিয়াকরণ ও বাজারজাতকরণের উপর প্রশিক্ষন প্রদান করা হবে।


Share with :

Facebook Twitter